মেনু নির্বাচন করুন

কৃষকের পাট কাটার দৃশ্য

পাট ও পাটজাত দ্রব্য বাংলাদেশের প্রধান অর্থকরী ফসল ।  উষ্ণ ও মৌসুমী জলবায়ু অঞ্চলে পাটের চাষ ভাল হয় । বাংলাদেশ মৌসুমী জলবায়ুর অর্ন্তগত হওয়ায় পাটের চাষ ভাল হয় । সাধারণত চৈত্র ও বৈশাখ মাসে পাটের বীজ বপন করা হয় এবং শ্রাবন ও ভাদ্র মাসে কাটা হয় । পাট কাটার পর ৫/৭ দিন জমিতে রাখা হয় । এরপর পাতা ঝাড়া দেওয়ার পর পুকুর,ডোবা,নালা,নদীতে ডোবানো হয় এবং ২০/২৫ দিন অন্তর এর আশঁ ছাড়িয়ে রোদে শুকিয়ে বাজারে নিতে হয় ।বর্তমানে  প্রতি একরে প্রায় ৩৫/৪০ মন পাট উৎপাদিত হয় । পাট হতে পাট খড়ি, সুতলি,চট,দড়ি প্রভৃতি দ্রব্য তৈরী হয় । পাট উৎপাদনে বাংলাদেশের স্থান বিশ্বে চতুর্থ ।  আর একারণে পাটকে সোনালী আশঁ বলা হয় ।


Share with :

Facebook Twitter